Dr. Haradon Debnath

ব্রেইন অ্যানিউরিজম এমন একটি অবস্থা যেখানে আপনার মস্তিষ্কের রক্তনালীর যে বেলুনিং বা বুলিং (ballooning or bulging) রয়েছে তা ফেটে গিয়ে মস্তিষ্কে হঠাৎ রক্তক্ষরণ হওয়া। এটিকে হেমোরজিক স্ট্রোক(hemorrhagic stroke) বলা হয়।

ব্রেন অ্যানিউরিজমের কারণগুলি
• বংশগত সম্পর্ক ।
• উচ্চ রক্তচাপ।
• মাথার গুরুতর আঘাত।
• ধূমপান।

ব্রেন অ্যানিউরিজমের লক্ষণ :-
বেশিরভাগ মস্তিষ্কের অ্যানিউরিজমগুলি ফাটে না এবং লক্ষণগুলি বোঝা যায় না। অতএব, এই লক্ষণগুললি সহজ সনাক্তকরণ নয়। এই বিঘ্নিত অ্যানিউরিজমগুলি অন্যান্য অবস্থার জন্য প্রায়শই পরীক্ষার সময় সনাক্ত করা হয়।
বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মস্তিষ্কের অ্যানিউরিজমগুলি ফেটে গেলেই তার লক্ষণ প্রকাশ পায়। এর মধ্যে রয়েছে:
• হঠাৎ তীব্র মাথাব্যথা
• ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়া ।
• বমি বমি ভাব।
• চোখের কাছে বা পেছনে ব্যথা।
• অস্পষ্ট দৃষ্টি / দ্বিগুণ দৃষ্টি
• মুখের একপাশ অবশ হওয়া বা অসাড়তা।

মস্তিষ্কের অ্যানিউরিজমের ফলে সাবআরকনয়েড হেমোরেজ বা রক্তক্ষরণ হতে পারে এবং এই রোগীদের ভেতর প্রতি ৫ জনের মধ্যে প্রায় ৩ জন রোগীই ২ সপ্তাহের মধ্যেই মারা যায়।

রোগ নির্ণয় :
অ্যাঞ্জিওগ্রাম হ’ল অ্যানিউরিজম সনাক্তকরণের জন্য সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য পরীক্ষা। এটি আপনার রক্তনালীগুলির দুর্বল দাগগুলি চিত্রিত করে। আপনার চিকিৎসক আপনার পায়ের রক্তনালীগুলির মাধ্যমে একটি ক্যাথেটার নামক একটি ছোট নমনীয় নল প্রবেশ করিয়ে দেবেন। তিনি বা তিনি আপনার ঘাড়ের রক্তনালীগুলিতে মস্তিষ্ক পর্যন্ত প্রসারিত ক্যাথেটারকে গাইড করবেন। আপনার মস্তিষ্কের সমস্ত রক্তনালীগুলি দেখতে কনট্রাস্ট ডাই ইনজেকশনের পরে তিনি এক্স-রে নেবেন। এটি চিকিৎসককে সহজেই মস্তিষ্ক অ্যানিউরিজমের অবস্থান নির্ণয় করতে সহায়তা করে।
এছাড়াও ব্রেন অ্যানিউরিজম সনাক্তের জন্য এমআরআই,
সিটি স্ক্যা্ন,
সিএসএফ পরীক্ষা করা হয়ে থাকে।

চিকিৎসা:
মাথায় রক্তক্ষরণের বিপদ শুধুমাত্র অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে দূর করা সম্ভব৷ একটি পন্থা হল পেশেন্টের কুঁচকি দিয়ে ক্যাথিটার ঢুকিয়ে মগজের সংশ্লিষ্ট ধমনি পর্যন্ত চলে যাওয়া৷
ওই ক্যাথিটার দিয়েই অ্যানিউরিজমে প্ল্যাটিনামের অতি সূক্ষ্ম প্যাঁচানো তার ঢোকানো হয়, যার ফলে ফোলা জায়গাটাতে আর কোনো রক্ত ঢুকতে পারে না৷ অ্যানিউরিজমটিকে মস্তিষ্কের রক্তচলাচল থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়, তার ভেতরের রক্তও আর জমাট থাকে না, বরং তরল হয়ে আসে৷
অন্য উপায়টি হল সরাসরি মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার৷ সেজন্য সবচেয়ে কাছ দিয়ে অ্যানিউরিজম অবধি পৌঁছানো দরকার৷ অতি সাবধানে কাজ করতে হয় – অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে অ্যানিউরিজমটায় টাইটানের তৈরি ক্লিপ লাগাতে হয়৷
চাপ বাঁধা জায়গাটার ঠিক তলায় ক্লিপ বসিয়ে ফোলা জায়গাটাতে আর যাতে রক্ত না ঢোকে, তার ব্যবস্থা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *